বান্দরবান সীমান্তে মিয়ানমারের মর্টার শেল!

২৮ আগস্ট,২০২২

বান্দরবান সীমান্তে মিয়ানমারের মর্টার শেল!

নিউজ ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: আজ রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে বান্দরবান জেলার নাইক্ষংছড়ির তমব্রু উত্তর পাড়ার কাছে মিয়ানমার থেকে ছোঁড়া দুটি মর্টার শেল এসে পড়ে বলে স্থানীয় প্রশাসন জানায়। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

নাইক্ষংছড়ি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা ফেরদৌস বলেন, দুপুর আড়াইটার দিকে উত্তর পাড়ার কাছাকাছি, সীমান্তের নো ম্যানস ল্যান্ড থেকে আধা কিলোমিটার ভেতরে মিয়ানমার থেকে দুটি মর্টার শেল এসে পড়ে। আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে জানিয়েছি।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছ থেকে তিনি জানতে পেরেছেন, গত কয়েকদিন ধরেই ওই সীমান্তে মিয়ানমারের ভেতরে গোলাগুলি চলছে। এর আগেও কয়েকটি মর্টার শেল সীমান্তের কাছাকাছি পড়েছে। তবে এবার এই দুটি শেল বাংলাদেশের ভেতরে লোকালয়ে পড়লো।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেছেন, দুই সপ্তাহ ধরে মিয়ানমারের ভেতরে গোলাগুলি চলছে। এলাকার লোকজনের কাছ থেকে জেনেছি, সেখানে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী আর (বিদ্রোহী) আরাকান বাহিনীর মধ্যে ফাইট হচ্ছে। আজ উত্তরপাড়ার কাছাকাছি মর্টার শেল এসে পড়েছে।

তবে শেলগুলো বিস্ফোরিত হয়নি বলে তিনি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিজিবির একটি দল ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে। তারা মর্টার-শেলগুলো নিষ্ক্রিয় করার ব্যবস্থা করবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এই বিষয়ে সচিব মাসুদ বিন মোমেন সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, এ ধরনের ক্ষেত্রে সাধারণত ওদের কাছে আমরা প্রতিবাদ করি। কিছুদিন আগেও এরকম কয়েকটি খবর আমরা পেয়েছিলাম। আমরা আবার ওদেরকে কড়া প্রতিবাদ করবো যে, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে যাতে এ ধরনের কোন কিছু না হয়।

মন্তব্য

মতামত দিন

জাতীয় পাতার আরো খবর

পুলিশ প্রধান ও র‍্যাব কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার অর্থ কী

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: গুরুতর মানবাধিকার লংঘনমূলক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে বাংলাদেশের পুলিশের এলিট ফোর্স র‍্য . . . বিস্তারিত

কোনো নিয়মেই থামছে না ঘরমুখী মানুষের স্রোত

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনমুন্সীগঞ্জ: কোনো আইন-কানুনই আটকাতে পারছে না শিমুলিয়ার জনস্রোত। প্রশাসনের সকল কৌশল টপকিয়ে যাত্রীদ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 

ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com