ইমরান খানের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের, যেকোনো মুহূর্তে গ্রেফতার!

২২ আগস্ট,২০২২

ইমরান খানের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের, যেকোনো মুহূর্তে গ্রেফতার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং পিটিআইয়ের চেয়ারপারসন ইমরান খানের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের (এফআইআর) করা হয়েছে। তাকে যেকোনো মুহূর্তে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে গুঞ্জন চলছে।

রোববার রাতে ইসলামাবাদের মারগালা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনের আওতায় এজাহারটি দায়ের করা হয়। দায়িত্বে থাকা ম্যাজিস্ট্রেট আলী জাভেদ এটি দাখিল করেন। এরপরই ইমরান খানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে সে দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এজাহারটিতে বলা হয়, ইমরান খান তার বক্তৃতার মাধ্যমে জনগণের বিরুদ্ধে উত্তেজনা ও সন্ত্রাস ছড়িয়ে দিয়েছেন।

ইমরান খানের বনি গালার বাসভবনের বাইরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অনুমতি ছাড়া কোনো লোককে তার বাসভবনে ও বাসভবনগামী রাস্তায় প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।
এদিকে পিটিআই কর্মীরাও ইমরান খান চকে উপস্থিত রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ইতোমধ্যেই জারি করা হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি।

তবে পিটিআই নেতা মুরাদ সাইয়িদ টুইটারে জানিয়েছেন, ইমরান খানকে গ্রেফতার করার আদেশ ইস্যু করা হয়েছে।

তবে সেখানে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা বলেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে গ্রেফতার করতে নয়, তারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করার জন্য সেখানে রয়েছেন।

পুলিশের তদন্ত করার ঘোষণা এমন সময়ে এলো যখন পাকিস্তানের সরকার ও ইমরান খানের মধ্যে প্রবল উত্তেজনা চলছে।

গত এপ্রিল মাসে একটি অনাস্থা ভোটে হেরে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে বিদায় নিতে হয় ইমরান খানকে। এরপর থেকেই তিনি নতুন নির্বাচনের দাবি আসছেন।

বিভিন্ন বক্তব্যে পাকিস্তানের সরকার ও সেনাবাহিনীর কড়া সমালোচনাও করেছেন।

ইমরান খান শনিবার রাজধানীতে একটি জনসভায় বলেছিলেন, দলের শাহবাজ গিলের ওপর নির্যাতন করার জন্য ইসলামাবাদের ইন্সপেক্টর জেনারেল, ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল ও নারী ম্যাজিস্ট্রেটকে ছাড়বেন না।

ইমরান খান আরো বলন, গিলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হলে ফজলুর রহমান, নওয়াজ শরিফ, রানা সানাউল্লাহকেও বিচারের আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, গিলকে নির্যাতন করার মাধ্যমে সরকার আমাদের ভয় দেখাতে চাচ্ছে।

শাহবাজ গিল নামে পরিচিত মোহাম্মদ শাহবাজ সাব্বির গিল শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদ ও ইমরান খানের বিশেষ সহকারী। তাকে রাষ্ট্রদ্রোহ, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে উসকানি দেয়ার অভিযোগে ইসলামাবাদ পুলিশ গ্রেফতার করে।

এদিকে শনিবার পাকিস্তানের গণমাধ্যমের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ঘোষণা দিয়েছে, ইমরান খানের বক্তব্য সরাসরি প্রচার করতে পারবে না দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলো, কারণ সেখানে রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য থাকে।

তবে ইমরান খান দাবি করেছেন, সরকার তার ওপর সেন্সরশিপ আরোপ করতে চাইছে। রবিবার রাওয়ালপিন্ডিতে আরেকটি সমাবেশে ইমরান খান ওই ঘোষণার নিন্দা করেছেন।

তিনি আরো দাবি করেছেন, সরকার ইউটিউব দেখায় বাধা তৈরি করছে, যাতে জনগণ তার বক্তব্য শুনতে না পারে।

ক্ষমতা থেকে সরে যেতে বাধ্য হলেও পাকিস্তানে ইমরান খানের অনেক ভোটারের সমর্থন রয়েছে।

গত মাসেই পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ পাঞ্জাবের প্রাদেশিক পরিষদের উপ-নির্বাচনে পিএমএল-এনকে হারিয়ে বড় বিজয় পেয়েছে ইমরান খানের দল পিটিআই।

অনেকে মনে করেন, ওই নির্বাচনের ফলাফল ইঙ্গিত দিচ্ছে যে ভোটারদের মধ্যে ইমরান খানের জনপ্রিয়তা অব্যাহত রয়েছে।

তার দাবি অনুযায়ী আগাম নির্বাচন দেয়া হলে সেখানে ফলাফল কী হতে পারে, সে বিষয়েও একটি ইঙ্গিত পাওয়া যায়।

২০১৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান। কিন্তু সে দেশের শক্তিশালী সেনাবাহিনীর সঙ্গে দ্বন্দ্বের কারণে তিনি মেয়াদ শেষ করতে পারেননি।

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

তালেবান নিষেধাজ্ঞাকে ‘বুড়ো আঙুল’ দেখাচ্ছে আফগান মেয়েরা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: তালেবান দ্বিতীয় দফায় আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের প্রায় আড়াই মাস পেরিয়ে যাচ্ছে। প্রথম দফার . . . বিস্তারিত

ন্যাটোকে পাল্টা হুঁশিয়ারি চীনের

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: সম্প্রতি বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে একদিনের ন্যাটো সম্মেলনে বেইজিংয়ের সামরিক তৎপরতা নিয় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 

ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com